ঝালকাঠি সরকারি কলেজে ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) পালিত !

প্রকাশিত: ১:৩৯ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৪, ২০১৯

ঝালকাঠি সরকারি কলেজে  ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ)  পালিত !

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠি সরকারি কলেজে যথাযথ মর্যাদায় ও ধর্মীয় ভাব গাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ)পালিত হয়েছে। বুধবার ১৩ নভেম্বর কলেজ মিলনায়তনে মিলাদ মাহফিল, আলোচনা, বিশেষ মোনাজাত ও পুরস্কার বিতরণের মাধ্যমে দিবসটি পালন করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অধ্যক্ষ প্রফেসর আনছার উদ্দীন। সহযোগী অধ্যাপক আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপাধ্যক্ষ আফতাব উদ্দিন, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক সহযোগী অধ্যাপক ইলিয়াস বেপারী, কাউন্সিলর রেজাউল করিম জাকির।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মুসলিম উম্মাহর সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। একই সঙ্গে মহানবী (সা.)-এর জীবনাদর্শ অনুসরণ করে ভ্রাতৃত্ববোধ ও মানবকল্যাণে ব্রতী হওয়ার আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, প্রায় এক হাজার ৪০০ বছর আগে এই দিনে আরবের মরু প্রান্তরে মা আমিনার কোল আলো করে জন্ম নিয়েছিলেন বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)। আবার এই দিনে তিনি পৃথিবী ছেড়ে চলে যান।

আইয়ামে জাহেলিয়াতের অন্ধকার দূর করে তৌহিদের মহান বাণী নিয়ে এসেছিলেন এই মহামানব। প্রচার করেছেন শান্তির ধর্ম ইসলাম। তাঁর আবির্ভাব এবং ইসলামের শান্তির ললিত বাণীর প্রচার সারা বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টি করে।
ইসলাম ধর্মমতে, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব হজরত মুহাম্মদ (সা.) নবুয়তের সিলসিলায় শেষ নবী। তাঁর জন্ম ও ওফাত দিবস ১২ রবিউল আউয়াল মুসলমানদের কাছে এক পবিত্র দিন। মুসলমান সম্প্রদায় দিনটি পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) হিসেবে পালন করেন। বছর ঘুরে এল আবার সেই দিন।

সারা আরব বিশ্ব যখন পৌত্তলিকতার অন্ধকারে ডুবে গিয়েছিল, তখন মহান আল্লাহ পাক তাঁর পেয়ারা হাবিব বিশ্বনবী (সা.)-কে বিশ্বজগতের রহমতস্বরূপ পাঠিয়েছিলেন। তিনি ৪০ বছর বয়সে নবুয়ত লাভ করেন। এরপর বিশ্ববাসীকে মুক্তি ও শান্তির পথে আহ্বান জানান। সব ধরনের কুসংস্কার, গোঁড়ামি, অন্যায়, অবিচার ও দাসত্বের শৃঙ্খল ভেঙে মানবসত্তার চিরমুক্তির বার্তা বহন করে এনেছিলেন তিনি। এরপর মহানবী (সা.) দীর্ঘ ২৩ বছর এ বার্তা প্রচার করে ৬৩ বছর বয়সে ইহলোক ত্যাগ করেন।


মুজিব বর্ষ

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Pin It on Pinterest