বাগেরহাটে বাড়ি বাড়ি খাদ্যপণ্য দিচ্ছে জেলা প্রশাসন

প্রকাশিত: ৮:৪১ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৯, ২০২০

বাগেরহাটে বাড়ি বাড়ি খাদ্যপণ্য দিচ্ছে জেলা প্রশাসন
মোঃ সাগর মল্লিক বাগেরহাট প্রতিনিধি:- করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ঘরের বাইরে লোক চলাচল নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। এতে বিপাকে পড়েছেন দিনমজুরসহ নিম্ন আয়ের লোকজন। এসব দরিদ্র মানুষের বাড়িতে খাদ্যপণ্য পৌঁছে দিচ্ছে বাগেরহাট জেলা প্রশাসন। রোববার (২৯ মার্চ) দুপুরে সদর উপজেলার সুগন্ধি গ্রামের আশ্রয়কেন্দ্রের মানুষদের হাতে চাল, ডাল, তেল, লবণ, পেঁয়াজ ও সাবান তুলে দিয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশিদ। এ সময় বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায়, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. কামরুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন, সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা তানজিল্লুর রহমান, শেখ ফিরোজুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজিয়া পারভীনসহ অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। পরে কচুয়া উপজেলার রাড়ীপাড়া, মোরেলগঞ্জের দৈবজ্ঞহাটি, মোল্লাহাট, চিতলমারীসহ বিভিন্ন এলাকায় হতদরিদ্রদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও সাবান বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক। বাগেরহাটের দরিদ্র মানুষদের জন্য ১০০ মেট্রিক টন চাল ও ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অভাবী পরিবারগুলোকে ১০ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি করে ডাল, তেল, লবণ, পেঁয়াজ ও সাবান দেওয়া হচ্ছে। আশ্রয়নকেন্দ্রের বাসিন্দা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী শামীম মোল্লা ও রিকশাচালক রজব আলী বলেন, কয়েক দিন ধরে ঘরের বাইরে যেতে পারি না। চালসহ অন্যান্য খাদ্যপণ্য ধার করে খাচ্ছি। ডিসি সাহেব চাল, ডাল দিয়েছেন। খুব উপকার হলো। রোমেচা বেগম, হাসিম হাওলাদার, নার্গিস বেগম বলেন, জেলা প্রশাসন থেকে চাল, ডালসহ অনেক কিছু পেয়েছি। এতে আমাদের কয়েক দিন চলবে। এই পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে আরো সহযোগিতার প্রয়োজন হবে। বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বলেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে লোকজন ঘরে থাকছেন। যারা দিন আনে দিন খায়, তারাও ঘরের বাইরে আসতে পারছেন না। এসব দরিদ্র মানুষের জন্য সরকার যে ত্রাণ বরাদ্দ দিয়েছে, আমরা তা ঘরে ঘরে পৌঁছে দিচ্ছি। এ খাদ্য সহায়তা অব্যাহত থাকবে।

মুজিব বর্ষ

Pin It on Pinterest