লেবুখালী পায়রা সেতুর শুভ উদ্বোধন।

প্রকাশিত: ১১:২৩ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০২১

লেবুখালী পায়রা সেতুর শুভ উদ্বোধন।

বিশেষ প্রতিনিধি : বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল বাসীর স্বপ্নের লেবুখালীর পায়রা সেতু (লেবুখালী সেতু) কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকত ও পায়রা সমুদ্রবন্দর পর্যন্ত ফেরিবিহীন সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা নির্মাণকাজ শেষে সৌন্দর্য বর্ধনের মাধ্যমে ২৪ অক্টোবর সকাল ১০ টায় গণভবন হতে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত থেকে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের আওতায় সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তর কর্তৃক নির্মিত পায়রা সেতু(লেবুখালী সেতু) শুভ উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় লেবুখালী পায়রা সেতুর টোল প্লাজার দক্ষিন প্রান্তে উদ্বোধনী ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে সংযুক্ত ছিলেন পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক এমপি, পটুয়াখালী-১ আসনের সংসদ সদস্য মো. শাহজাহান মিয়া, সংসদ সদস্য-২ আ.স.ম ফিরোজ, সংসদ সদস্য-৩ এস এম শাহজাদা, সংসদ সদস্য-৪ মোঃ মহিববুর রহমান, বরিশাল-৬ সংসদ সদস্য বেগম নাসরিন জাহান রত্না, বরিশাল ৪ সংসদ সদস্য পংকজ দেবনাথ, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ, মহিলা আসন-২৯ সংসদ সদস্য কাজী কানিজ সুলতানা হেলেন, মহিলা আসন-২৮ এ্যাডভোকেট সৈয়দা রুবিনা আক্তার মীরা, শেখ হাসিনা সেনা নিবাস কমান্ডার জিওসি ও এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল আবুল কালাম মোঃ জিয়াউর রহমান, বিভাগীয় কমিশনার মোঃ সাইফুল হাসান বাদল, বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি এস এম আক্তারুজ্জামান, সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ আব্দুস সবুর, পবিপ্রবি ভিসি ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত, সড়ক ও জনপদ মহাসড়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল্লাহ আল হাসান চৌধুরী, আবু হেনা মো. তারেক ইকবাল, উপ-সচিব মো. সামীমুজ্জামান, পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ খলিলুর রহমান, প্রকল্প পরিচালক এম এ হালিম সহ পটুয়াখালী ও বরিশাল জেলা প্রশাসনের সরকারি কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য যে, ২০১৩ সালের ১৯ মার্চ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পায়রা সেতুর ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করার পরে দীর্ঘ ৮বছর ৭মাস ৫দিন শেষে দেশের দক্ষিনাঞ্চলের স্বপ্নের লেবুখালী সেতু কুয়াকাটা, তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র ও পায়রা বন্দর পর্যন্ত ফেরিবিহীন সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু হয়েছে যা বর্তমান সরকারের একটি নতুন মাইলফলক। সেতু কর্তৃপক্ষ ঢাকা-বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়কের (এনএইচ-৮) ১৯২ কিলোমিটার এবং বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়কের ২৭ কিলোমিটারে লেবুখালীর পায়রা নদীর ওপর সব শেষ সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হয় ২০১৬ সালের ২৪ জুলাই। কুয়েত ফান্ড ফর আরব ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট (কেএফএইডি) এবং ওপেক ফান্ড ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্টের (ওএফআইডি) যৌথ অর্থায়নে ১ হাজার ৪৪৭ কোটি ২৪ লাখ টাকা ব্যয়ে সেতু নির্মাণের দায়িত্ব পায় চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান লংজিয়ান রোড অ্যান্ড ব্রিজ কোম্পানি লিমিটেড। পটুয়াখালী, বরগুনা জেলা ও দুমকি উপজেলাসহ স্থানীয় জনগনের মধ্যে সেতুটি উদ্বোধনের পর সহশ্রাধিক স্কুল কলেজ ও ভ্রমন পিপাসু মানুষ কড়া রোদ্র উপেক্ষা করে সেতুতে আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠছে।


মুজিব বর্ষ

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Pin It on Pinterest