নেত্রকোনায় দেবোত্তর সম্পত্তি দখলের অভিযোগ উঠেছে ইসকনের বিরুদ্ধে

প্রকাশিত: ৪:০২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৯, ২০২০

নেত্রকোনায় দেবোত্তর সম্পত্তি দখলের অভিযোগ উঠেছে ইসকনের বিরুদ্ধে
রিফাত আহমেদ রাসেল, নেত্রকোনা প্রতিনিধিঃ নেত্রকোনার মোক্তাপাড়া এলাকায় হিন্দুদের দেবোত্তর সম্পত্তি দখলের অভিযোগ উঠেছে ইসকনের বিরুদ্ধে। গত শুক্রবার দিনব্যাপী দখলকান্ডকে ঘিরে উত্তেজনা বিরাজ করে। পরবতীতে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে দখলকারী ইসকন সদস্যদের জনতার ভেতর থেকে উদ্ধার করে নিরাপদে পাঠিয়ে দেয়। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মোক্তারপাড়া শহরের মেইন সড়কের উপরে ৯ শতাংশ জমির এক অংশে তাপস কুমার সরকারের বোন ছায়ারানী সরকার বসবাস করতেন। তাপস কুমার সরকার ভূমিটি উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত হয়ে দীর্ঘ ৬৫ বছর যাবৎ ভোগদখল করে আসছিলেন। ঘরটি মেরামত করতে বোন মেয়ের বাড়িতে গিয়েছিল। কিন্তু গত শুক্রবার দিনের বেলায় সকালে ইসকন সদস্যরা ঢোল করতাল নিয়ে ঘরটি দখলে নিয়ে নেয়। এদিকে এ ঘটনায় দুপুরেই তাপস সরকার থানায় লিখিত অভিযোগ দেন ইসকন সদস্য সুবীর চন্দ্র সরকারকে বিবাদী করে। কিন্তু বিকাল থেকে মোক্তারপাড়া এলাকায় ইসকনের দখল নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করে। ভূমির মালিক ও ইসকনদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। ভূমির মালিক ছায়ারানি ও তার বোন অভিযোগ করেন, তাদের গায়ে ইসকনের পুরুষরা হাত তুলেছেন। এসময় তারা গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। পরবতর্ীতে সন্ধ্যা বেলায় বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে গেলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে পড়ে। এরপর মডেল থানার পুলিশসহ অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। পরবতর্ীতে দখলকারী ইসকনের সদস্যদের ঘরের ভেতর থেকে বের করে নিরাপদে পাঠিয়ে দেয়া হয়। তাপস সরকারের লিখিত অভিযোগে প্রকাশ থাকে যে, পারিবারিক বিষয়াদি নিয়ে সুবীর চন্দ্র সরকার শত্রুতা পোষন করে আসছিলো। এর জের ধরে গত শুক্রবার ৩০/৪০ জন ইসকনের সদস্য নিয়ে তারা বেআইনীভাবে দখল পায়াতারা করে। ঘরটি জরাজীর্ন এবং নতুন সড়ক উঁচু হওয়ায় ঘরের মেঝে নীচু হয়ে পড়লে তা মেরামত করানোর জন্য মেয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন ছায়ারানি। ঘরের চাল মেরামতের কাজও চলছে। দখলের খবর পেয়ে তারা ছুটে আসলে তাদেরকে ভয়ভীতি দেখায়। এ ব্যপারে অভিযুক্ত ইসকন সদস্য সুবীর চন্দ্র সরকারের মুঠোফোনে চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয় নি। নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি মো. তাজুল ইসলাম জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতেই ঘরের ভেতর থেকে ইসকন কয়েকজকে বের করে নিরাপদে পাঠিয়ে দিয়েছি। যেহেতু ধর্মীয় বিষয় তাই তাদেরকে বলা হয়েছে তারা বসে মীমাংসা করবে। এ বিষয়ে কোন পক্ষই শনিবার বিকাল পর্যন্ত কোন অভিযোগ করেনি। তবে দখলের বিষয়ে শুক্রবার একটি অভিযোগ হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

মুজিব বর্ষ

Pin It on Pinterest