মির্জাগঞ্জে সাংবাদিকের চুরি হওয়া ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন উদ্ধার, ৩ যুবক আটক

এপ্রিল ২০ ২০২০, ২০:৩৭

কামরুজ্জামান বাঁধন, বিশেষ প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে একাত্তর টেলিভিশন, দৈনিক আমার সংবাদ এর উপজেলা প্রতিনিধি ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল আলোকিত সময় ডট কম এর বিশেষ প্রতিনিধি কামরুজ্জামান বাঁধনের দেড় মাস পূর্বে চুরি হওয়া ল্যাপটপ,মোবাইল ফোন ও অন্যান্য মালামাল উদ্ধার করেছে মির্জাগঞ্জ থানা পুলিশ।গত রবিবার রাতে উপজেলার পশ্চিম সুবিদখালী গ্রামসহ বিভিন্ন এলাকায় পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে মালামাল উদ্ধারসহ ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে পুলিশের নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহনসহ শত ব্যস্ততার মধ্যেও পটুয়াখালী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসান পিপিএম এর নির্দেশক্রমে প্রযুক্তি ব্যবহার করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. মুকিত হাসান খানের নেতৃত্বে মির্জাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি এম.আর শওকত আনোয়ার ইসলাম ও ওসি (তদন্ত) শাহ আলম,তদন্তকারী কর্মকর্তা মো.সাইফুল ইসলাম সহ মির্জাগঞ্জ থানা পুলিশের একটি দল রবিবার (১৯এপ্রিল)রাতে উপজেলার পশ্চিম সুবিদখালী গ্রামসহ বিভিন্ন এলাকায় পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে তিন জন মো.আরিফুল ইসলাম রায়হান, মো.হোসাইন ও মো.ইমন কে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে দেয়া তথ্যানুযায়ী তাদের বাড়ী থেকে চুরি হওয়া ল্যাপটপ,মোবাইল, পত্রিকার পরিচয় পত্র সহ অন্যান্য মালামাল উদ্ধার করা হয়। এ বিষয়ে সাংবাদিক কামরুজ্জামান বাঁধন রবিবার রাতে ৩জনকে আসামী করে মির্জাগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো.মুকিত হাসান খাঁন বলেন,পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসান পিপিএম স্যারের নির্দেশনায় এবং প্রযুক্তি ব্যবহার করে চোর চক্রকে শনাক্ত করে রবিবার মির্জাগঞ্জ থানা পুলিশের সহায়তা নিয়ে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৩জনকে আটক করি এবং চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধার করি।বর্তমানে সারা বিশ্ব ছাপিয়ে বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে পুলিশের শত ব্যস্ততার মাঝেও আমরা এই চুরির বিষয়টিকে বিশেষভাবে গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করে প্রযুক্তি ব্যবহার করে চোর চক্রকে শনাক্ত করি।এরকম আরো কিছু মোবাইল চুরির এজাহার রয়েছে সেগুলোকেও আমরা পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসান পিপিএম স্যারের নির্দেশনা মোতাবেক এবং প্রযুক্তি ব্যবহার করে তদন্ত চলমান করছি।আশা করি খুব শীঘ্রই আমরা অন্যান্য মোবাইল চোর চক্রকে আটক করে আইনের আওতায় আনতে সক্ষম হবো। উল্লখ্য,গত ৬ মার্চ সাংবাদিক কামরুজ্জামান বাঁধন ব্যক্তিগত কাজে ঢাকায় যাওয়ার সময় উপজেলার সুবিদখালী বাস ষ্ট্যান্ডের বাস কাউন্টারে ব্যবহৃত ল্যাপটপ সহ ব্যাগটি ভুলে কাউন্টারে রেখে গাড়ীতে উঠে চলে যান।কিছু দূর যাওয়ার পর তিনি বাস থেকে নেমে কাউন্টারে ফিরে এসে ব্যাগটি না পেয়ে কাউন্টার ম্যানের কাছে ব্যাগ পাওয়ার বিষয়টি জানতে চাইলে কোন ব্যাগ পাওয়া যায়নি বলে জানান।পরদিন তিনি এ বিষয়ে মির্জাগঞ্জ থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেন।

আমাদের ফেসবুক পেজ


Pin It on Pinterest