মহামারীতে রূপ নেওয়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে আগৈলঝাড়ায় এ যেন জাগ্রত মানবতার লড়াই! বাড়ি বাড়ি যাচ্ছে ত্রাণ

প্রকাশিত: ৯:২০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২০

মহামারীতে রূপ নেওয়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে আগৈলঝাড়ায় এ যেন জাগ্রত মানবতার লড়াই! বাড়ি বাড়ি যাচ্ছে ত্রাণ

মোঃ জহিরুল ইসলাম সবুজ. আগৈলঝাড়া প্রতিনিধি: বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রা পেতে এক প্রকার লকডাউন হয়েছে আগৈলঝাড়া। মানুষের চলাফেরা এখন নিয়ন্ত্রিত। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ কর্মসূচির কারণে দিনমজুর খেটে খাওয়া মানুষ থেকে শুরু করে সকল শ্রেনী ও পেশার মানুষ এখন ঘরমুখী। দেশব্যাপী কর্মহীন ঘরবন্দি শ্রমজীবী মানুষ, দরিদ্র ও দুঃস্থরা পড়েছেন বিপাকে। তাদের আয়-রোজগার নেই বললেই চলে। এ অবস্থায় কর্মহীন হয়ে পরা নিম্ন আয়ের শ্রমজীবীদের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে সরকার। জেলায়-উপজেলায় সরকারিভাবে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে নগদ অর্থ এবং চাল-ডালসহ নিত্যপণ্য। সরকারি কর্মকর্তারা সেসব অর্থ ও নিত্যপণ্য শ্রমজীবী, দরিদ্র ও দুস্থদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিতরণ করছেন। একই সঙ্গে বেসরকারি উদ্যোগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দরিদ্রদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে। মহামারীতে রূপ নেওয়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের পাশাপাশি এ যেন মানবতার পরেও লড়াই। মানবিকতাবোধে জাগ্রত হয়ে বরিশালের আগৈলঝাড়ায় কর্মহীন গরিব ও দুস্থদের বাঁচিয়ে রাখতে বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিত্যপণ বিতরণ চলছে। তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার বাকাল ইউনিয়নের ৭০ জন কর্মহীন ঘরবন্দি শ্রমজীবী, দরিদ্র ও দুঃস্থদের মধ্যে জেলা প্রশাসকের বরাদ্ধকৃত চাল. ডাল. আলু. পেয়াজ. তেল বাড়ি বাড়ি ঘুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী রওশন ইসলাম বিতরন করেন। জনসচেতনা এবং দুঃস্থদের খাদ্য সহায়তা প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রইচ সেরনিয়াবাত, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আবু সালেহ মো. লিটন সেরনিয়াবাত. বাবাল ইউপি চেয়ারম্যান বিপুল দাস প্রমূখ। এছাড়াও করোনা মোকাবেলায় লকডাউন আগৈলঝাড়ায় কর্মহীন হয়ে পড়া দুঃস্থ শ্রমিকদের মধ্যে সরকারী বরাদ্দের চাল এর সাথে জাতির পিতার ভাগ্নে, স্থানীয় এমপি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ’র ব্যাক্তিগত অর্থায়নে কর্মহীন দুঃস্থ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান অব্যাহত রয়েছে। সরকারের পাশপাশি থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আফজাল হোসেন ব্যাক্তিগত অর্থায়নে বাড়ি বাড়ি গিয়ে কর্মহীন শ্রমিকদের খাদ্য সহায়তা প্রদান করে আসছেন। দুঃস্থদের খাদ্য সহায়তা প্রদান করে যাচ্ছে ছাত্রলীগ নেতা সাগর সেরনয়িাবাত। তবে এলাকায় সমাজসেবক হিসেবে দাবিদার ব্যাক্তিবর্গ যারা সমাজসেবায় একাথিক ক্রেষ্ট ও সনদপত্র পেয়েছেন এমন ব্যাক্তি, এলাকার ধর্নাঢ্য ব্যাক্তি, সমাজসেবা অধিদপ্তর ও সমবায় অধিদপ্তরের সরকারী সাহায্যপুস্ট এনজিওসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে দুঃস্থদের করোনা মোকাবেলায় হাত ধোয়ার জন্য এক পিচ সাবান বিতরণের কোন খবর পাওয়া যায়নি। দেখা মিলছে না স্থানীয় অনেক জনপ্রতিনিধিদেরও। আর হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন মানবাধিকার কর্মীরা। করোনার কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত স্বল্প আয়ের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সরকারে এ উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী রওশন ইসলাম। বার্তা প্রেরক মোঃ জহিরুল ইসলাম সবুজ আগৈলঝাড়া প্রতিনিধি


মুজিব বর্ষ

Pin It on Pinterest