শিক্ষানবীশ আইনজীবীদের করণীয় বিষয় আলোচনা করবেন আইনমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১২:৪৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২০

শিক্ষানবীশ আইনজীবীদের করণীয় বিষয় আলোচনা করবেন আইনমন্ত্রী

আলোকিত সময় রিপোর্ট:
বর্তমান করোনাভাইরাস মহামারীর পরিস্থিতিতে সারাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কিন্তু আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর প্রায় ১৩ হাজার শিক্ষানবীশ আইনজীবীদের লিখিত পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে নোটিশ দিয়েছে আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ বার কাউন্সিল। কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবের কথা বিবেচনা করে পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রণকারী এই সংস্থার নেতাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। মঙ্গলবার এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই তথ্য জানিয়েছেন। খবর ওয়েবসাইটের।

পরীক্ষা পেছানো প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বিষয়ে বার কাউন্সিলের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনা করব। এ সপ্তাহে আমার সঙ্গে তাদের কথা হতে পারে।’ সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার (এসকে সিনহা) আমলে বারের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হাজার হাজার শিক্ষার্থীর খাতা মূল্যায়নের ভার সুপ্রীমকোর্টের বিচারপতিদের ওপর অর্পণ করা হয়। কিন্তু মামলার জট বৃদ্ধি পাওয়া সত্ত্বেও নিষ্পত্তি ও রায় লেখার পাশাপাশি অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে খাতা মূল্যায়নের দায়িত্ব বিচারপতিদের ওপর অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি করে।

তাই বিচারপতিদের ওপর অর্পিত অতিরিক্ত দায়িত্ব কমিয়ে আনতে খাতা মূল্যায়নের ভার পুনরায় আইনজীবীদের হাতে ফিরিয়ে আনতে কোন বিধি প্রণয়ন বা সংশোধনের প্রয়োজন রয়েছে? এমন প্রশ্নে আনিসুল হক বলেন, ‘এসকে সিনহা অনেক কিছুর অমূলক পরিবর্তন করেছিলেন। সেগুলো নিয়ে আমরা কথা বলব। এটি সুবিধা-অসুবিধার বিষয়। যেটি বাস্তবিকভাবে সুবিধার হবে, সেটিই করা হবে বলে আমি আশা করি। এ বিষয়ে বারের সঙ্গে আলোচনা করব।’

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

মুজিব বর্ষ

ফেসবুক পেজ

Pin It on Pinterest