বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীন সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সম্মেলন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ৯:৪০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৮, ২০২০

বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীন সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সম্মেলন অনুষ্ঠিত

শামসুল কাদির মিছবাহ, সুনামগঞ্জ::
বাংলাদেশ জমিয়তুল মোদার্রেছীনের সুনামগনঞ্জ জেলা শাখার সম্মেলনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে শহরের কাজির পয়েন্ট লতিফা কমিউনিটি সেন্টার হলরুমে সম্মেলনে জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল আহাদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মঈনুল ইসলাম পারভেজের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপাচার্য ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ, প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের মহাসচিব মাওলানা অধ্যক্ষ শাব্বির আহমদ মোমতাজী। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, অধ্যক্ষ মাওলানা এ কে এম মনোয়ার আলী, অধ্যক্ষ মাওলানা নোমান আহমদ, অধ্যক্ষ মাওলানা সরওয়ারে জাহান, উপাধ্যক্ষ মাওলানা আবু সালেহ মোহাম্মদ কুতবুল আলম, অধ্যক্ষ মাওলানা আলী নূর, অধ্যক্ষ আবু নছর ইব্রাহিম, অধ্যক্ষ মাওলানা নুর উদ্দিন, অধ্যক্ষ মাওলানা আবু বক্কর, সুপার মাওলানা ফারুক আহমদ, প্রভাষক কাজী আমিন আত তাফহিম, সুপার ছাাদিকুর রহমান, সুপার আব্দুল মান্নান, সুপার ছিদ্দিকুর রহমান, সহকারি শিক্ষক ওলিউর রহমান, সুপার নাজমুল হুদা প্রমুখ।
এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইসলামি আরবি বিশ^ বিদ্যালয় ঢাকা’র উপাচার্য ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ বলেন, ভালো শিক্ষক হতে হলে বেশি করে পড়াশোনা করতে হবে, মাদ্রাসা শিক্ষকরা ও মুসলিম জাতি শিক্ষা ক্ষেত্রে জ্ঞান বিজ্ঞানে সব সময় এগিয়ে। তাই শিক্ষক সমাজকে হতাশ হলে চলবে না। প্রধান অতিথি বলেন, প্রতিযোগিতায় নিজেকে সাজিয়ে নিতে হবে। মনে রাখবেন একজন ভালো শিক্ষক হতে হলে সব সময় বই পড়তে হবে। আপনি যেই বিষয়ে শিক্ষক হোন, পড়াশোনার বিকল্প নেই। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কে এগিয়ে নিতে ভালো ও দক্ষ শিক্ষকের বিকল্প নেই। তিনি আরো বলেন, সরকার শিক্ষা ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নয়ন করেছে। মাদরাসা শিক্ষা আর পিছিয়ে নেই।
প্রধান বক্তার বক্তব্যে সংগঠনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা শাব্বির আহমদ মোমতাজি বলেন, বর্তমান সরকার মাদরাসা শিক্ষকদের ন্যায্য দাবী দাওয়া অনেকাংশে পূর্ণ করেছে। স্কুল কলেজের প্রধান শিক্ষক ও অধ্যক্ষদের সাথে মাদরাসার সুপার ও অধ্যক্ষদের যে বেতন বৈষম্য ছিল তা দূর করেছে। ২০১৮ সালে জনবল কাঠামো বর্তমান সরকার বাংলাদেশ জমিয়তুল মোদার্রেছিনের দাবীর প্রেক্ষিতে বর্তমান অর্থ বছর থেকে বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে। এখন বেসরকারি মাদরাসা স্কুল ও কলেজের শিক্ষকদের প্রাণের দাবি হচ্ছে তাদের চাকরি জাতীয়করণ করা। আমরা আজকের সম্মেলন থেকে আশা পোষন করছি প্রধানমন্ত্রী অচিরেই মাদরাসা শিক্ষকদের চাকরি জাতীয়করণ করবেন।
অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অধ্যক্ষ মাওলানা ছমির উদ্দিন, অধ্যক্ষ মাওলানা ময়নুল হক, অধ্যক্ষ মাওলানা তাজুল ইসলাম আলফাজ, অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ সৈয়দ হোসেন, অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল হাদি, অধ্যক্ষ মাওলানা শহিদুল ইসলাম নিজামি, অধ্যক্ষ মাওলানা আনোয়ার হোসেন আব্দুল্লাহ, অধ্যক্ষ মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল মতিন, সুপার মাওলানা মাহবুবুর রহমান তাজুল, সুপার মাওলানা আব্দুল জলিল, সুপার মাওলানা মাখসুসুল করিম চৌধুরী, সুপার মাওলানা আব্দুল গফ্ফার আজাদ, সুপার মাওলানা শহিদুল ইসলাম, সুপার মাওলানা মোস্তাক আহমদ, সুপার মাওলানা সালেহ আহমদ, সুপার মাওলানা নুরুল হক প্রমুখ।


এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

মুজিব বর্ষ

Pin It on Pinterest