তালতলী থানা পুলিশ ও ব্রাকের ব্যতিক্রমি উদ্যোগ হাত ধুয়ে প্রবেশ।

মার্চ ২৬ ২০২০, ০০:০৩

মোঃ হাইরাজ ,বরগুনা প্রতিনিধিঃ বরগুনার তালতলী থানা পুলিশ ও বেসরকারি এনজিও ব্রাক করেনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচাত হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করছ। মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার পুলিশ হবে জনতার এই স্লোগান কে সামনে রেখে। মানুষদের নিরাপদ রাখতে্ ব্যতিক্রম উদ্যোগ নিয়েছে বরগুনার তালতলী থানা পুলিশ। থানার ভিতরে রয়েছে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা। সেখানে দায়িত্বে রয়েছেন পুলিশের একজন কনস্টেবল। থানায় আসা ব্যক্তিদের হাত ধোয়ার পর ভেতরে ঢোকার অনুমতি দিচ্ছেন তিনি। (২৫শে মার্চ) বুধবার তালতলী থানায় গিয়ে দেখা যায় এমন দৃশ্য। থানার ভিতরে বসানো হয়েছে অস্থায়ী বেসিন। যাঁরা থানায় পুলিশের কাছে সেবা নিতে আসছেন, তাঁদের সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার পর ভেতরে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে। হাত ধোয়ার সময় স্থানীয় সেবা গৃহীতরা জানান তারা ব্যক্তিগত কাজে থানায় এসেছে। করোনাভাইরাসের সচেতনতা নিয়ে পুলিশের এমন উদ্যোগ অনেককেই উৎসাহিত করবে। তারা সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে ভেতরে যায়। থানায় ডিউটি অফিসার এস আই মোঃ রফিকুল ইসলাম । তিনি বলেন, থানায় পুলিশের কাছে সেবা নিতে আসা সবাইকে হাত ধুয়ে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে। এতে পুলিশসহ আগতরাও অনেকটা নিরাপদ থাকবেন। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এক শত নারী-পুরুষ হাত ধুয়ে থানায় ঢুকেছেন। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম বলেন, প্রতিদিনই পুলিশের কাছে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ নিয়ে স্থানীয় ব্যক্তিরা থানায় আসেন। করোনাভাইরাস নিয়ে সচেতনতায় তাঁরা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশমতো এমন কার্যক্রম শুরু করেছেন। এই কর্মকাণ্ড অব্যাহত থাকবে। এ দিকে বে সরকারি এনজিও ব্রাক, তাদের অফিসের সামনে পানির ড্রাম বসিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থ করছে। হাত না ধুয়ে অফিসে কাউকে ঢুকতে দিচ্ছে হাত না। এ বিষয় বে সরকারি এনজিও ব্রাকের ম্যানেজার সংকোর কুমার বলেন, বিশ্বের মাহা মারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচাতে ও সকলকে নিরাপদ রাখতে আমরা হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করছি।