করোনাভাইরাস: সংক্রমন রোধে এনজিওসমূহের প্রতি এডাবের আহবান

এপ্রিল ০৬ ২০২০, ১৪:৫২

আলোকিত সময় ডেস্কঃ বর্তমানে সারাবিশ্বে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারি রূপ ধারণ করেছে। বাংলাদেশেও এই মহামারি ছড়িয়ে পড়েছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমনরোধে ইতোমধ্যে সরকার সারাদেশে গণপরিবহন বন্ধ, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও সাধারণ ছুটিসহ নানা পদক্ষেপ গ্রহন করেছেন। চলমান এই মহামারি প্রতিরোধকল্পে সরকার সমাজের বিত্তবান ব্যক্তি ও সংগঠনকে সহায়তা করার আহবান জানিয়েছেন। সরকারের আহবানে সাড়া দিয়ে করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে সচেতনতা বৃদ্ধি ও কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমজীবি মানুষদের সহায়তার লক্ষ্যে এডাব ও এর সদস্য সংস্থাসমূহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এসব কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, প্রায় নয় লক্ষ সচেতনতামূলক লিফ্লেট বিতরণ, তিনশ’র বেশী জনবহুল স্থানে ব্যানার ও বিলবোর্ডের মাধ্যমে সচেতনতামূলক পরামর্শ প্রচার, করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষার সহায়ক সামগ্রী হিসেবে প্রায় চল্লিশ হাজার মাস্ক, আঠেরো হাজার সাবান, তেইশ হাজার হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ করাসহ ১০টি গ্রাম্য হাট ও ২ টি পৌরসভায় জীবানুনাশক ব্লিচিং পাউডার স্প্রে করা। এছাড়া জনসাধারণের হাত ধোয়ার সুবিধার জন্য এডাব-এর সদস্য সংস্থাসমূহ সারাদেশে প্রায় দুশোটি জনবহুল স্থানে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করেছে। ভাইরাসের বিস্তার রোধে সাড়া দেশে সৃষ্ট অচল অবস্থায় এপর্যন্ত প্রায় পাঁচ হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি ভাইরাস সংক্রমন মোকাবেলায় ও দরিদ্রদের সহায়তার লক্ষ্যে এডাব সদস্য সংস্থার পক্ষ থেকে স্থানীয় প্রশাসনকে প্রায় দশ লক্ষ টাকা নগদ সহায়তা দেয়া হয়েছে। করোনা ভাইরাস সম্পর্কে মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এডাব অনলাইনে প্রচারনা চালাচ্ছে এবং সদস্য সংস্থার কমিউনিটি রেডিও থেকে নিয়মিতভাবে করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে সচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করছে। বিভিন্ন স্থানে করোনা ভাইরাস সংক্রমনে করণীয় সম্পর্কে নিয়মিত মাইকিংসহ অনলাইন যোগাযোগ ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করছে। করোনা ভাইরাসের ঝুকি এড়াতে ও এই মহামারি থেকে জনগণকে নিরাপদ রাখতে এডাব ও এর সদস্য সংস্থাসমূহ অব্যাহতভাবে প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

আমাদের ফেসবুক পেজ


Pin It on Pinterest