নলছিটিতে বকেয়া ঋণের টাকা চাওয়ায় ব্যাংক ব্যবস্থাপককে হুমকি

প্রকাশিত: ১১:২৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৯

নলছিটিতে বকেয়া ঋণের টাকা চাওয়ায় ব্যাংক ব্যবস্থাপককে হুমকি

সাইফুল ইসলাম :
ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার নাচনমহলে সোনালী ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপককে হুমকি দিচ্ছে ঋণ জালিয়াতি চক্র। বকেয়া ঋণের টাকা চাওয়ায় বৃহস্পতিবার এ চক্রের কয়েকজন মিলে শাখা ব্যবস্থাপক আসাদুজ্জামান মোল্লাকে হুমকি দেয়। এ ঘটনায় তিনি নলছিটি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

অভিযোগে জানা যায়, সোনালী ব্যাংক নাচনমহল শাখায় ১২ কোটি টাকা ঋণ খেলাপী রয়েছে সারে চার হাজার গ্রাহক। ঋণ জালিয়াতি একটি চক্র ব্যংক থেকে ঋণ নিয়ে তা পরিশোধ করছেন না। এ চক্রটির প্রধান রানাপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিজাম উদ্দিন খান ওরফে বিনু মাষ্টার। এছাড়াও এ চক্রের সঙ্গে রয়েছে স্থানীয় ব্যবসায়ী রাজ্জাক হাওলাদার, মাসুদ আলম, মো. আলমগীর ও রাসেল তালুকদার। এরা বিভিন্ন অসংখ্য মানুষকে ভুল বুঝিয়ে তাদের মাধ্যমে ব্যাংক থেকে ঋণ গ্রহণ করে। ঋণ গৃহিতাকে অর্ধেক টাকা দিয়ে বাকি টাকা এই চক্রটি আত্নসাত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। চক্রের সঙ্গে জড়িতরাও ব্যাংক থেকে মোটা অঙ্কের ঋণ নিয়ে তা পরিশোধ না করে নানা টালবাহানা শুরু করেছেন। ব্যাংকটির শাখা ব্যবস্থাপক আসাদুজ্জামান মোল্লা খেলাপী ঋণের টাকা চাইতে গেলে চক্রটি তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছেন। এমনকি তাকে প্রকাশ্যে ও মোবাইলফোনে হুমকি দিচ্ছে। এ ঘটনাায় তিনি নলছিটি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

শাখা ব্যবস্থাপক আসাদুজ্জামান মোল্লা বলেন, ব্যাংকের শাখাটি রক্ষার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি, কিন্তু বকেয়া ঋণ পরিশোধ করছেন না গ্রাহকরা। স্থানীয় একটি ঋণ জালিয়াচি চক্র প্রভাব বিস্তার করে ঋণ দিচ্ছে না। এতে প্রায় ১২ কোটি টাকা বকেয়া হয়ে গেছে। আমি বকেয়া টাকা চাইতে গেলে, তারা আমাকে নানা ধরণের ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন। আমাকে মেরে তাড়িয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করছেন। আমি থানায় একটি জিডি করেছি।
এ ব্যাপারে নিজাম উদ্দিন খানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

নলছিটি থানার ওসি মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, জিডি তদন্ত করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিস্তারিত জানার পরে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


মুজিব বর্ষ

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Pin It on Pinterest