সুনামগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ জয়িতা লক্ষী রানী দাস

প্রকাশিত: ৯:৫৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৯, ২০১৯

সুনামগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ জয়িতা লক্ষী রানী দাস

শামসুল কাদির মিছবাহ, সুনামগঞ্জ::
আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস ২০১৯ উদযাপন উপলক্ষে ‘‘জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ‘‘ কার্যক্রমের আওতায় সুনামগঞ্জ জেলা পর্যায়ে সফল জননী নারী ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ জয়িতা নির্বাচিত নির্বাচিত হয়েছেন দিরাই উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামের লক্ষী রানী দাস। সোমবার সকাল ১১টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে অনুষ্ঠিত জয়িতাদের সম্মানান প্রদান অনুষ্ঠানে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদের নিকট থেকে শ্রেষ্ঠ জয়িতার সম্মানান গ্রহন করেন লক্ষী রানী দাস। এসময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন পুত্রবধু দিরাই উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট রিপা সিনহা। উল্লেখ্য, দুই ছেলে ও তিন মেয়ের জননী লক্ষী রানী দাস দারিদ্রতার সঙ্গে লড়াই করে প্রতিটি সন্তানকে স্ব-স্ব ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। বড় মেয়ে একজন সফল গৃহিনী, তিনি একজন বিধবা হয়েও নিজের পরিশ্রমে সংসারে আর্থিক স্বচ্ছলতা এনেছেন। বড় ছেলে নৃপেন্দ্র কুমার দাস বাংলাদেশ সেনাবহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ল্যান্স কর্পোরাল, ছেলে বউ শংকরী মন্ডল, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, দ্বিতীয় ছেলে উদ্ধব কুমার দাস, একটি প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি কোম্পানীতে কর্মরত, ছেলে বউ সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সরকারি চাকুরীজীবি, ছোট ছেলে ডা: স্বাধীন কুমার দাস, সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালের সার্জারী বিভাগে কর্মরত, ছেলে বউ অ্যাডভোকেট রিপা সিনহা, দিরাই উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান। ছোট মেয়ে পুস্প রানী দাস, একজন প্রধান শিক্ষক, মেয়ে জামাই শান্তি রাম বিশ^াস অবসরপ্রাপ্ত উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা। এদিকে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস ২০১৯ উদযাপন উপলক্ষে ‘‘জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ‘‘ কার্যক্রমের আওতায় জেলার প্রতিটি উপজেলায় শ্রেষ্ঠ জয়িতাদের সংবর্ধনা ও সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।


মুজিব বর্ষ

Pin It on Pinterest