ফুলবাড়ীয়ার কালাদহ দাখিল মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সভাপতি নজরুল ইসলাম l

প্রকাশিত: ১২:০৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৫, ২০২১

ফুলবাড়ীয়ার কালাদহ দাখিল মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সভাপতি নজরুল ইসলাম l

মোবারক হোসেনঃ ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কালাদহ দাখিল মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম।

গত বুধবার (২২ ডিসেম্বর) উপজেলা শিক্ষা অফিসে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে দুই প্রার্থী ৪টি করে সমান সংখ্যক ভোট পাওয়ায় লটারির মাধ্যমে মোঃ নজরুল ইসলামকে সভাপতি নির্বাচিত ঘোষনা করা হয়। প্রতিন্দ্বন্দ্ধি প্রার্থী ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোবারক আলী মাষ্টার। নির্বাচন পরিচালনা করেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ বেলায়াত হোসেন।

কমিটির অন্যান্যরা হলেন, সদস্য সচিব প্রতিষ্ঠানটির সুপার মোঃ আব্দুল মোন্নাফ, সাধারণ শিক্ষক সদস্য রুহুল আমিন, আনোয়ারা বেগম, আ.ন.ম আব্দুস সামাদ ও অভিভাবক সদস্য মোঃ রবিউল হোসেন, আবুল কালাম মোঃ হাছেন আলী, ফজলুল হক, মোবারক আলী ও উম্মে কুলছুম।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এই ধরনের মাদ্রাসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতিত্ব করার মতো যোগ্য ও সর্বজন গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি মোঃ নজরুল ইসলাম। বিষয়টি সর্ব মহলে বেশ প্রশংসিত হয়েছে।

নতুন সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, আমরা সমান সংখ্যক ভোট পাওয়ায় আমি লটারির মাধ্যমে নির্বাচিত হয়েছি, আমার লক্ষ্য উদ্দেশ্য থাকবে একটাই অত্র প্রতিষ্ঠানটির সার্বিক উন্নয়ন নিশ্চিত করা।

প্রতিষ্ঠানটির সুপার মোঃ আব্দুল মোন্নাফ বলেন, যেহেতু মাদ্রাসাটি রাস্তার ধারে তাই নতুন কমিটির কাছে প্রত্যাশা থাকবে ছাত্র-ছাত্রীর নিরাপত্তার স্বার্থে সিমানা প্রাচীর অত্যন্ত জরুরী। এছাড়াও উপজেলার অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে আধুনিক বিল্ডিং রয়েছে, সভাপতি যেহেতু সরকার দলীও নেতা তাই একটি বিল্ডিং এর প্রত্যাশা করি।

উল্লেখ‌্য, মাদ্রাসাটি ১৯৮২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এলাকার মেয়েদের ইসলামী শিক্ষা অর্জনের প্রয়োজনে স্থানীয় জনসাধারণের সহযোগিতায় অত্র এলাকার বিশিষ্ট আলেম মাওলানা আমির হোসেন সিদ্দিকীর অক্লান্ত পরিশ্রমে এবং বাংলাদেশ তথা উপমহাদেশের বিশিষ্ট ওলীয়ে কামেল কুতুবুল আকতাব মাওলানা ওলী আহমদ (রহঃ) এর নামে এবং অত্র মান্দারবাড়ীয়া গ্রামের সাথে সর্ম্পক রেখে প্রতিষ্ঠানটির নামকরণ করা হয়। প্রতিষ্ঠানটি প্রথমত এবতেদায়ী পঞ্চম শ্রেনী পর্যন্ত শিক্ষার কার্যক্রম শুরু করে। এরপর ধাপে ধাপে দাখিল দশম শ্রেনী পর্যন্ত শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করে। অতঃপর ১৯৯৫ সালে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড থেকে স্বীকৃতি লাভ করে।


মুজিব বর্ষ

Pin It on Pinterest