ভারতের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন দ্রৌপদী মুর্মু

প্রকাশিত: ১২:৪৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০২২

ভারতের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন দ্রৌপদী মুর্মু

অনলাইন ডেস্ক :ভারতের ১৫তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে আজ সোমবার শপথ নিলেন দ্রৌপদী মুর্মু। তিনি হলেন সে দেশের প্রথম নারী আদিবাসী প্রেসিডেন্ট।

শপথ নেওয়ার পর দ্রৌপদী মুর্মু বলেছেন, গরিবরাও যে স্বপ্ন দেখতে পারে এবং তা পূরণ করতে পারে সেটা প্রমাণিত হলো।

ভারতের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ৬৪ শতাংশ ভোট পেয়েছেন দ্রৌপদী।


উত্তর প্রদেশ ও মহারাষ্ট্র থেকে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ভোট পেয়েছেন দ্রৌপদী। ওড়িশার ময়ূরভঞ্জের সাঁওতাল পরিবারের সন্তান দ্রৌপদীর জয়ের পরই উৎসবে মেতে ওঠে আদিবাসী সমাজের মানুষ।

এর আগে রামনাথ কোবিন্দ, প্রণব মুখোপাধ্যায়, প্রতিভা পাতিল, এ পি জে আবদুল কালাম–সবাই প্রেসিডেন্ট পদে শপথ গ্রহণ করেছিলেন ২৫ জুলাই।

প্রসঙ্গত, ১৯৭৭ সাল থেকে ২৫ জুলাই ভারতের প্রেসিডেন্ট পদে শপথগ্রহণ শুরু হয়েছে। সেদিন ভারতের ষষ্ঠ প্রেসিডেন্ট নীলম সঞ্জীব রেড্ডি শপথ গ্রহণ করেছিলেন।

এর পর থেকে সব প্রেসিডেন্ট ২৫ জুলাই শপথ গ্রহণ করেছেন। কারণ ১৯৭৭ সালের পর থেকে সব প্রেসিডেন্টই তাদের পূর্ণ মেয়াদ পর্যন্ত পদে থেকেছেন। সেই অনুযায়ী সব প্রেসিডেন্টেরই মেয়াদ শেষ হয়েছে ২৪ জুলাই। এই আবহে ২৫ জুলাই পরবর্তী প্রেসিডেন্ট শপথ গ্রহণ করেছেন সাড়ে চার দশক ধরে।

ভারতের প্রথম প্রেসিডেন্ট হয়েছিলেন রাজেন্দ্র প্রসাদ। তিনি শপথ গ্রহণ করেছিলেন ১৯৫০ সালের ২৬ জানুয়ারি। ১৯৬২ সালের ১৩ মে পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট পদে ছিলেন তিনি। এরপর প্রেসিডেন্ট হয়েছিলেন সর্বপল্লি রাধাকৃষ্ণন। তিনি নিজের পূর্ণ মেয়াদ পর্যন্ত পদে ছিলেন। তবে এরপর ফকরুদ্দিন আলী আহমেদ এবং জাকির হুসেন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিজেদের মেয়াদ পূরণ করতে পারেননি। মাঝে ভিভি গিরি অবশ্য নিজের মেয়াদ পূর্ণ করেছিলেন।

এরপর অস্থায়ী প্রেসিডেন্ট হিসেবে ১৯৭৭ সালের ২৫ জুলাই পর্যন্ত দায়িত্ব সামলেছিলেন বিডি জাট্টি। এর পর থেকে সব প্রেসিডেন্ট নিজেদের পাঁচ বছরের মেয়াদ পূর্ণ করেছেন এবং সবার মেয়াদই শেষ হয়েছে ২৪ জুলাই।

এ পরিস্থিতিতে পরবর্তী প্রেসিডেন্ট শপথ নিয়েছেন ২৫ জুলাই এবং এই পরম্পরা সাড়ে চার দশক ধরে চলে আসছে।

সূত্র : এনডিটিভি


মুজিব বর্ষ

Pin It on Pinterest