বৃহস্পতিবার সরিকল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার জন্য সম্মেলন হোতে যাচ্ছে।

প্রকাশিত: ৬:০০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০১৯

বৃহস্পতিবার সরিকল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার জন্য সম্মেলন হোতে যাচ্ছে।

আগামী ২৮ শে নভেম্বর বৃহস্পতিবার সরিকল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার জন্য সম্মেলন হোতে যাচ্ছে। কিন্ত নানা ভাবে সরিকলের তৃণমূল আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ এবং মুক্তিযুদ্ধে বিশ্বাসী সাধারণ মানুষ আগামী কমিটি নিয়ে হতাশ এবং তাদের প্রশ্ন ! আওয়ামীলীগের আগামী নেতৃত্ব কি হালে পাল দেওয়া ২০০৯- ২০১৪ সাল সহ চেয়ারম্যান নির্বাচনকে কেন্দ্র করে, অনুপ্রবেশকারী জাহাঙ্গীর মোল্লা পরিবারের নানা অপকর্ম, হিন্দুদের জমাজমি দখল সহ নারী নির্যাতনের মত জঘন্যতম ঘটনার ইতিহাস থাকলেও কেন উপজেলা আওয়ামীলীগের জনৈক একজন বড় নেতা ঐ বিশেষ পরিবারের সদস্যদের প্রতি কি কারনে দারুন খুশি? এবং সে কারনেই তিনি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর সভাপতি বা সাধারন সম্পাদক পদে ঐ পরিবারের তিনজনের যে কাউকে বসাতে চান! আওয়ামীলীগের উন্নয়নের এ দীর্ঘ সময়ও যে নেতৃত্ব সরিকলের মত স্পর্শ কাতর এলাকায় দলের সাংগঠনিক পরিধি বাড়াতে না পারলেও উপজেলার ঐ নেতার নির্দেশে অত্র এলাকার প্রকৃত ত্যাগী আওয়ামীলীগ নেতাকর্মী সহ আওয়ামীলীগ পরিবার নানা ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে সরিকলের বর্তমান রাজনীতি থেকে দুরে রেখেছেন। যে কারনে স্হানীয় জনগণ দারুণভাবে অখুশি। জনগন মনে করে তারাই অত্যাচারী মোল্লা পরিবারটি কোন কারনেই আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে থাকা ঠিক না। কিন্তু যদি কোনো কারনে আবার নতুন কমিটিতে, কোন বড় পদ-পদবী পাওয়ার তদবীরে তারা দৌড়ে নেতাদের কাছে এগিয়ে থাকে,তবে নিশ্চিত ভাবে আওয়ামী ঘরানা রাজনীতি সরিকলে ভবিষ্যতে চরম সংকটময় অবস্থায় পড়বে। কারন ১৩/১৪ বছরের কমিটির সকল সদস্যদের সবাইকেও পর্যন্ত দলটির অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মিগন আজবদি চিনেন না। এমন কি সরকারের অত্র অঞ্চলে নানানুখি উন্নয়নের বিষয়ে কখনোই জনগন সহ তৃণমূল নেতাকর্মীদের জানানো কিংবা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর গ্রামীণ অর্থনীতি এবং ভীষন ২০২১/ ৪১, পর্যন্ত জনগন জানে না। বিগত এক যুগের অযোগ্য ঐ নেতৃত্ব সেটা পারে নাই। সরকারের দেয়া নানামুখি সুবিধাভোগীের চিত্রটিও আজবদি প্রান্তিক মানুষদের তারা জানাতে সক্ষম হন নাই। নৌকার প্রতিকের চেয়ারম্যান সাহেবও নৌকাকে ঢাল হিসাবে ব্যবহার করে জনগন নয় নিজের ভাগ্য বদলাতে ব্যস্ত। সাধারন মানুষকে আজও আওয়ামীলীগ মুখি করতে না পারার প্রধান কারন হিসাবে সরিকলের দীর্ঘদিনের অযোগ্য পরিবার কেন্দ্রীক অরাজনৈতিক নেতৃত্বকেই দায়ী করেছেন। তৃণমূল আওয়ামীলীগ ও জনগন মনে করেন,আওয়ামিলীগের হাতেই কেবল মাত্র আওয়ামীলীগ নিরাপদ। অনুপ্রবেশকারী, হিন্দু সম্পত্তি জবরদখলকারী, মাদক বিক্রেতা, ঝাটকা পাচারকারীদের হাতে কখনোই আওয়ামীলীগ নিরাপদ নয়। এমন চিন্তাভাবনা এবং আশা আকাঙ্খা নিয়ে আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেতা, বরিশাল জেলার আওয়ামীলীগের সভাপতি জনাব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ সাহেবের কাছে সরিকল আওয়ামীলীগের দাবী অনুপ্রবেশকারী দূর্নীতিবাজ মোল্লা পরিবার কেন্দ্রীক কমিটি না করে, একটি সচ্ছ সাংগঠনিক কমিটি উপহার দিতে।


মুজিব বর্ষ

Pin It on Pinterest