মুচলেখা নিয়ে পাখি দেখার দায়িত্ব দিলেন এলাকাবাসীকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার

মে ২২ ২০২০, ২৩:২০

আবু মুসা স্টাফ রিপোর্টারঃ
নাটোরের বড়াইগ্রামে আম্ফানে ঝড়ের কবলে পড়ে শামুকখোল পাখি জবাই করে খাওয়ার অভিযোগ ওঠেছে বড়াইগ্রাম উপজেলার বাজিতপুর গ্রামবাসীর উপর, ঝড়ে অসহায় পাখিগুলো রান্না করে খেলে এলাকাবাসী শিরোনামে বিভিন্ন অনলাইনে নিউজ প্রচার করে সাংবাদিক আব্দুল কাদের সজল, ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন বিভাগীয় বন্যপ্রাণী পরিদর্শক,ও বড়াইগ্রাম নির্বাহী অফিসার আনোয়ার পারভেজ,

শুক্রবার সকালে বড়াইগ্রাম উপজেলার বাজিতপুর গ্রামে তারা গিয়ে সরেজমিনে পাখির আবাসস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় এলাকাবাসীদের সঙ্গে কথা বলেন এবং যারা ঝরে পড়া অসহায় পাখি ধরে জবাই করে যারা খেয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন। এ সময় বক্তব্য রাখে বড়াইগ্রাম নির্বাহি অফিসার আনোয়ার পারভেজ, রাজশাহী বিভাগীয় বন্যপ্রাণী পরিদর্শক জাহাঙ্গীর কবীর, ফরেষ্টার আশরাফুল ইসলাম, উপজেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগের ভেটেরেনারী সার্জন ডা. উজ্জল কুমার কুন্ডু,

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে তারা ঝরে পড়া পাখি খেয়েছে সেই লোকজনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে পাখির মাংস রান্না করে খাওয়ার প্রমাণ পান। তবে প্রশাসনের কর্মকর্তাদের আসার খবর পেয়েই তারা আগেই বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার পারভেজ জানান স্বইচ্ছায় আমাদের কাছে কেউ স্বীকার করেনি কিন্তু গোপনীয় জানতে পেরেছি কারা পাখি ধরে জবাই করে খেয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পরে ভবিষ্যতে পাখিদের আর কেউ ক্ষতি করবে না মর্মে এলাকার প্রধানদের কাছ থেকে লিখিত মুচলেকা নেয়া হয়েছে।

রাজশাহী বিভাগীয় বন্যপ্রাণী পরিদর্শক জাহাঙ্গীর কবীর জানান, পাখিগুলো বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হতে পারে, যারা মাংস খেয়েছে তারা বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হতে পারে, আর যারা খেয়েছে তারা সবাই অভিযুক্ত এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বিকেলে পুলিশ RAB অভিযান চালিয়েছে।

আমাদের ফেসবুক পেজ


Pin It on Pinterest