বরিশালে পরিত্যক্ত আম্বিয়া ক্লিনিকটি করোনা ভাইরাসের হোম কোয়ারেন্টিন করার দাবি

প্রকাশিত: ১০:২৯ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৩১, ২০২০

বরিশালে পরিত্যক্ত আম্বিয়া ক্লিনিকটি করোনা ভাইরাসের হোম কোয়ারেন্টিন করার দাবি
শফিউর রহমান কামাল বরিশাল ব্যুরোঃ বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে মহামারী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। আর এই মহামারী করোনা ভাইরাসের ছোবলে প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। দিন যতই যাচ্ছে আস্তে আস্তে ভারী হচ্ছে মৃত্যুর পাল্লা। যার ফলে আতংক ও উৎকণ্ঠের মধ্যে দিয়ে জীবন চলছে সাধারণ মানুষের। সরকারি হিসেব অনুযায়ী মহামারী এই ভাইরাসের কারণে বাংলাদেশে এ পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন ৫ জনের এবং বরিশালে এক দিনে করোনা সন্দেহে মারা গেছে ২ জন। তবে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। সচেতন মহল মনে করেন এখন থেকেই যদি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ গড়ে তোলা না যায় তাহলে এর সংক্রমণ বেড়ে ভয়াবহ রূপ ধারণ করতে পারে বরিশালে। আর আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পেলেও নেই পর্যাপ্ত পরিমাণ হোম কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা। এজন্য বরিশাল জেলা করোনা ভাইরাসের জন্য হোমকোয়ারেন্টাইনের দায়িত্বরত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে স্থানীয়রা বলেন, বরিশাল মহানগরের বগুড়া রোড মুন্সির গ্যারেজ এলাকায় অবস্থিত আম্বিয়া ক্লিনিকটি বরিশাল বাসীর অতি পরিচিত একটি ক্লিনিক। যার প্রতিষ্ঠাতা মরহুম ইউনুস সাহেব মানুষের সেবা প্রদান করার উদ্দেশ্যে তার নিজ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিতা করেন ৬ তলা বিশিষ্ট এই ক্লিনিকটি। ইউনুস সাহেব মৃত্যুর পর ক্লিনিকটি তার স্ত্রী পরিচালনা করছেন বলে জানা গেছে। এই ক্লিনিকটিতে ৭০ টির মত বেড, ৩/৪টি ওটি সহ রয়েছে নিরিবিলি এক মনোরম পরিবেশ। সু-বিশাল এই ক্লিনিকটি দীর্ঘ দিন যাবত পরিত্যাক্ত অবস্থায় পরে রয়েছে। তাই চলমান মহামারি করোনাভাইরাসের রুগী দিন দিন বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কা করছেন অনেকে। তাই করোনাভাইরাসের রুগী অথবা হোমকোয়ারাইন্টাইনের জন্য আম্বিয়া ক্লিনিকটি ব্যাবহার করতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন বরিশাল বাসী।

মুজিব বর্ষ

Pin It on Pinterest