দীর্ঘকালেও ঝবঝবিয়া নদীতে ব্রীজ না হওয়ায় দাকোপ বাসির দুর্ভোগের শেষ নেই।

প্রকাশিত: ৭:২১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১০, ২০২২

গোলাম মোস্তফা খান,খুলনা।

দাকোপ বাসির দীর্ঘ প্রত্যাশিত পানখালি বরনপাড়ার ঝবঝবিয়া নদীতে ব্রীজ একটি নির্মান। কয়েক যুগ আগে থেকেই এক এক সরকার ও নেতারা ব্রীজ নির্মানের বার বার শক্ত আশ্বাস দিলেও বর্তমানে ব্রীজ নির্মানের বিষয় টি একেবারেই আলচনার তলানিতে চলে গেছে। বিষয়টি নিয়ে কোন নেতাদের মুখে কেন সাড়াশব্দ নেই বলে এলাকাবাসি জানান। সবচেয়ে অবাক বিষয় ৩ বছর আগে এ নদীতে ব্রীজ নির্মানের টেন্ডার হয়,যা জাতীয়, স্থানীয় বিভিন্ন দৈনিকে ফলাও করে সংবাদ ও প্রকাশিত হয়। কিছুকাল পর জানা যায় ব্রীজটি আপাতত হবে না।জনৈক বড় নেতার তদবিরে অন্যত্র এ ব্রীজটি হবে। এমন খবরে এলাকার মানুষ মুষড়ে পড়ে। সর্বশেষ খুলনা জেলা সম্মেলনের দিন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের উনার বক্তৃতায় খুলনার উন্নয়ন নিয়ে কথা বলার সময় উন্নয়নের তালিকায় ঝবঝবিয়া নদীতে সত্তর ব্রীজ হবে কথাটি বলেছিলেন। তারপরও কোন অগ্রগতি নাই ব্রীজটি হওয়ার বিষয়ে। অথচ এ নদী দিয়ে প্রতিদিন নৌকায়,ট্রলারে দাকোপ,বটিয়াঘাটা,কয়রা,পাইকগাছা,রামপালের হাজার হাজান মানুষ পারাপার হয়ে থাকে। খুলনা যাতায়াতে এ পথটি সহজ এবং কম সময় লাগে বলেই মানুষের এ রুটটি পছন্দ পারাপারে কষ্টে শেষ নেই। বেশ কয়েকজন জনপ্রতিনিধি ও ব্যবসায়ীদের সাথে আলাপ হলে জানান ব্রীজ হবে বলে নদীর ২ পার দিয়ে রাস্তা হয়ে গেল, ব্রীজের টেন্ডার হলো কিন্তু ব্রীজ হলো না। আজব বিষয়। আমাদের এমপি হুইপ, মহিলা এমপি আমাদের এলাকার হওয়া সত্তেও ছোট এ নদীতে ব্রীজ না হওয়াটা দক্ষিনাঞ্চলের লক্ষ লক্ষ মানুষের খুবই কষ্টের ব্যাপার। বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী ও যোগাযোগ মন্ত্রীর আশু দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন এলাকার সর্বস্তরের জনগন।


মুজিব বর্ষ

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Pin It on Pinterest